790-x-90

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

কিভাবে নিজেকে ধুম পান থেকে বিরত রাখা যায়?

আমাদের মনুষ্য জীবনে অনেক কারনে ধুম পান যূক্ত হয়ে গেছে। এর বাইরে অবস্থান করতে পারেন না, এমন মানুষের সংখ্যাই বেশি। অর্থাৎ ধুম পান করেন এমন মানুষের সংখ্যা অনেক বেশি। অধুমপায়ী মানুষের সংখ্যা অনেক কম। তবে এই ব্যপারে এখন আর খুলে বলতে হয় না যে, ধুম পান করলে কী কী ক্ষতি হয়। সবাই জানেন। শুধু কিছু জরুরী পদক্ষেপের  কারনে  এই কাজ থেকে বিরত থাকা যাচ্ছে না। অনেকেই চেষ্টা করে যাচ্ছেন যে কোন ভাবেই যদি এই ধুম পান থেকে বিরত থাকা যায়।

ধুম পান একটি বাজে অভ্যাস অথচ অধিকাংশ মানুষ এর সাথে যুক্ত। অভ্যাস যদি না হত তবে একে বাদ দেয়া সহজ ছিল। তার পরেও ধুম পান থেকে বিরত থাকার বেশ কিছু জরুরী টিপস বদলে দিতে পারে একজন ধুমপায়ীর জীবন। অল্প কিছু টিপস নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে এখানে-

সদিচ্ছাঃনিজেকে ধুম পান থেকে বিরত রাখার জন্য সদিচ্ছা থাকাটা একেবারেই জরুরী। তবে এই সদিচ্ছা থাকলেও অনেকেই তা থেকে দু্রে থাকতে পারেন না। তাই যে কোন ভাবেই হোক নিজেকে এই অভ্যাস থেকে মুক্তি দেবার জন্য দৃড় প্রত্যয় ব্যাক্ত করতে হবে। অনেকেই মনে করেন ধুম পান একটি অহেতুক তৃপ্তির যোগান দেয়।

বিকল্পঃ অনেকেই বিকল্প হিসাবে খোজেন বিভিন্ন ধরনের মাদক জাতীয় কিছু। ভুল আপনি মাদকের সাথে নিজেকে জড়িয়ে লাভবান না হয়ে আরো খারাপের দিকেই যাবেন। আমি ধুম পানের বিকল্প হিসাবে চা কফি কিংবা উপাদেয় জুস এসব পান করার কথা বলব। কারন আপনি যদি কিছু না কিছু পান করেন আর খুব বেশি চিন্তা না করেন তবে নিকোটিনের নেশা ভুলে যেতে পারেন।

ব্যস্ততা বাড়ানোঃ ব্যস্ততা বাড়ানো আপনার জন্য অনেকটাই কাজের হবে বলে আমি মনে করি। ব্যস্ত হয়ে উঠলেই আপনি ভুলে যেতে পারেন নিকোটিনের সেই বাড়তি লাভ। তবে কাজের ফাঁকে সব সময় মুখ রোচক খাবার খাওয়া উচিত। সেসব মুখ রোচক খাবার ভুলিয়ে দেবে আপনার নিকোটিনের নেশা।

নিজেকে ধুম পান থেকে বিরত রাখার উপায় অনেক। তবে নিজে ঠিক না হলে তেমন কোন লাভ নেই। বন্ধু বান্ধবদের  সাথে আড্ডা দেয়ার ফলাফল হচ্ছে ধুম পানের প্রারম্ভিক পর্ব। তাই সেই বন্ধুদের সাথে কিছুদিন না মিশে দেখুন যারা ধুম পান করেন। এত কিছু যা করেছেন তার সব কিছুর মুলে দুটো বিষয় কাজ করবে, এক- আপনি একটি কাজ করতে পেরেছেন, ধুম পান মুক্ত জীবন। দুই- আপনি বাড়তি অর্থ অপচয় থেকে মুক্ত হতে পেরেছেন। এই দুটি তৃপ্তির কাছে আমার মনে হয় না ধুম পান জিতবে।

 

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ভেরিফাই করুন--- *